কেমিকেলযুক্ত প্রসাধনীতে নয়, মেকআপ তুলুন প্রাকৃতিক উপায়ে

sonalibangla24.comsonalibangla24.com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:38 AM, 13 November 2020

একটু আধটু মেকআপ করেন না এমন নারীদের খুঁজে পাওয়া মুশকিল। অফিসে কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মেকআপ করে না গেলে কি হয়!  সামান্য হলেও ফাউন্ডেশন, ফেইস পাউডার ও কাজল তো লাগাতেই হয় মুখে।

প্রতিদিনই নিজেকে সুন্দর করে তুলতে সাজগোজের বিকল্প নেই। চুল থেকে শুরু করে নখ, সবকিছু সাজানো হয়। নিজেকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে তুলতে আমরা যা যা ব্যবহার করি, সেগুলোর বেশির ভাগই রাসায়নিক। ফলে ব্যবহারের পর সেগুলোকে সঠিকভাবে তুলে ফেলতে হয়। নইলে ত্বক, চুল বা নখের ক্ষতি হয়।

সাজগোজের ব্যাপারে ত্বক, বিশেষ করে মুখের ত্বকে মেকআপ করা হয় বেশি। ফলে মেকআপজনিত ক্ষতি ত্বকেই বেশি হয়। তাই সাজগোজের নির্দিষ্ট সময় পর ত্বক থেকে মেকআপ তুলে ফেলতে হয়। সাজ তোলার জন্য অনেকেই মেকআপ ওয়াইপস বা রিমুভার ব্যবহার করতে চান না।

তবে কোন ত্বকে কেমন মেকআপ রিমুভার মানানসই, সেটাও অবশ্য বোঝা মুশকিল। আবার কারও ত্বকে হয়তো এ থেকে অ্যালার্জিও হতে পারে। তবে এ অজুহাতে মেকআপ তুলে ফেলার ধাপটা এড়াতে পারবেন না।

প্রাকৃতিক নানা উপাদানই চমৎকার কাজ করে মেকআপ রিমুভার হিসেবে। সেগুলো আপনি বাড়িতেই পেয়ে যাবেন। প্রাকৃতিক কয়েকটি মেকআপ রিমুভারের নাম ও ব্যবহারের পদ্ধতি জেনে নিন-

তেল

জলপাই তেল অথবা অলিভ অয়েল ভালো মেকআপ রিমুভারের কাজ করে। এ ছাড়া তিসির তেল ও তিলের তেল এ কাজে ব্যবহার করতে পারেন। যেকোনো ধরনের তেলের সঙ্গে একটু পানি মিশিয়ে নিন। এবার এটি পরিষ্কার তুলায় নিয়ে মুখে কিছুক্ষণ মালিশ করুন। ভারী মেকআপ নিলে তা খুব সহজেই তেলের মাধ্যমে উঠে আসবে।

নারকেল তেল একটু থকথকে হয় বলে মেকআপ তোলার কাজে এটি ব্যবহার করা একটু অসুবিধাজনক। কম ঘনত্বের তেল ব্যবহার করা ভালো। চোখের মাসকারা ও কাজল তেল দিয়ে সহজেই তুলে ফেলা যায়। তবে সতর্ক থাকতে হবে যেন তেল চোখের ভেতর ঢুকে না যায়।

গোলাপজল

তেল দিয়ে মেকআপ তোলার পর তুলায় গোলাপজল ভিজিয়ে তা দিয়ে পুরো মুখ পরিষ্কার করে নিতে পারেন।

শসার রস

কচি শসা ভালোভাবে ব্লেন্ড করে তার রস মুখে লাগালে মেকআপ উঠবে। এটি ত্বকের জন্যও ভালো।

আঙুর

সবুজ আঙুরের রস প্রাকৃতিক টোনার এবং ক্লিনজারের কাজ করে।

আলু

আলু থেঁতলে তা থেকে যে রস বের হয়, তা মুখে ১০-১৫ মিনিট মালিশ করুন। এটি মেকআপ তুলতে সাহায্য করবে। এই কায়দায় চোখের মেকআপও তোলা যাবে। চোখের নিচের কালি দূর করতেও কাজে দেয় এটি।

টমেটো

পাকা টমেটোর রস প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে। অল্প পরিমাণ সুজি টেলে লাল করে নিয়ে টমেটোর রসের সঙ্গে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এটি একই সঙ্গে মেকআপ রিমুভার এবং স্ক্রাবারের কাজ করবে।

মূলা

মূলার রসের সঙ্গে অল্প একটু গোলাপজল মিশিয়ে মুখের মেকআপ তুলে ফেলতে পারেন। এই মিশ্রণ যেকোনো দাগ ওঠাতে দারুণ কার্যকর।

টক দই

টক দই থেকে পানি ছেঁকে ফেলে দেয়ার পর এর সঙ্গে সামান্য পরিমাণ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মুখে মালিশ করুন, মেকআপ উঠে যাবে। পানি না ফেলে সরাসরি টক দই ব্যবহার করা মুখের ত্বকের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। মিশ্রণটি তুলায় লাগিয়ে ঠোঁটের লিপস্টিকও তুলতে পারবেন।

আপনার মতামত লিখুন :